প্রশ্ন ০৫: স্বর্ণ আছে ২.২৫ ভরি,২২k রোপ্য নেই। নগদ টাকা আছে ১১০০০০পাওনা টাকা আছে ৩৯০০০০যা আমি পরে পাবো,চাকুরীর ফান্ডে আছে ৮০০০০যা আমি ভবিষ্যৎতে পাবো,সমিতিতে আছে ১০০০০,যা আমারই অধিকার। দেনা আছে ৪৫০০০,শরিয়া মোতাবেক সমাধান চাই? মো:লিটন আলী। litonalilitu456@gamail.com

উত্তরঃ- আসসালামু আলাইকুম। আপনার প্রশ্নে বর্ণিত ২২     ক্যারেট  সোনার বর্তমান বাজার মূল্য প্রতি ভরি ৭১,৪৪২ টাকা। সেই হিসাবে, ২.২৫ ভরি সোনার মোট মূল্য ১,৬০,৭৪৫ টাকা+ নগদ ১,১০,০০০ টাকা+ পাওনা ৩,৯০,০০০ টাকা+ সমিতিতে ১০,০০০ টাকা; সর্বমোট ৬,৭০,৭৪৫ টাকা থেকে দেনা ৪৫,০০০ টাকা বাদ দিয়ে আপনার নেসাবের (অর্থাৎ, যাকাতযোগ্য সম্পদের) পরিমাণ দাঁড়ায় ৬,২৫,৭৪৫ টাকা। গত এক […]

প্রশ্ন ০৪: আমার ভাই একজন ঋণগ্রস্ত ব্যক্তি, তার একটি সন্তান প্রতিবন্ধী, কিন্তু সে চাকরি করেন, যা আয় করেন তার সম্পূর্ণ প্রায় ব্যয় করেন, তার বসতভিটা বিক্রি করা ছাড়া ঋণ পরিশোধের কোন ব্যবস্থা নাই এক্ষেত্রে আমি তাকে যাকাতের টাকা দিতে পারব কিনা? অনুগ্রহ করে জানাবেন। মোঃতৌফিক, ই-মেইল:mdtoufikjaman@gmail.com

উত্তর: আপনার ভাই যদি বনু হাশিম তথা সৈয়দ বংশীয় না হয়ে থাকেন এবং তার উপর যদি যাকাত ফরয না হয়ে থাকে তাহলে আপনি তাকে যাকাত দিতে পারবেন। শুধু তাই নয়, বরং অন্যদের তুলনায় সে অগ্রগণ্য। –মাওলানা মুফতী মাহমুদ হাসান গাঙ্গুহি (রহ.) প্রণীত ফাতাওয়ায়ে মাহমুদিয়ার ৯ম খন্ডের ৫৪০ পষ্ঠায় যাকাতের খাতসমূহ অধ্যায়ে বর্ণিত ৪৬৪৭-৪৮ নং জিজ্ঞাসার […]

প্রশ্ন ০৩: আমি একজন চাকরিজীবী। আমার ব্যাংকে এক লাখ টাকা আছে । এছাড়াও আমি প্রতি মাসে ডিপিএসএ ২ হাজার টাকা রাখি । তাছাড়া আমার প্রতি মাসে আরো কিছু টাকা হাতে থাকে । আমার প্রশ্ন হলো, আমি যাকাতের হিসাবটা কিভাবে করবো ? কত টাকার উপর করবো? আমি একটা সহজ হিসাব করতে চাই, সেটা হলো:- মনে করেন, আমি রমজান মাসে যাকাত দিতে চাই, এই রমজানে আমার কাছে যত টাকা আছে সব টাকার যাকাত দেবো। হোক সেটা আমি গত মাসের বেতন থেকে রেখেছি । আবার, এই রমজান থেকে পরবর্তি রমজান পর্যন্ত প্রতি মাসে যা আসবে তা এবং এই বছরের উদ্ধৃত যোগ করে যাকাত দেবো । নিয়মটা যদি শরিয়া সম্মত না হয়, দয়া করে বুঝিয়ে দিবেন…. (প্রতি মাসের জমা টাকা এক বছর পর পর প্রতি মাসে মাসে হিসাব রাখা কষ্টকর মনে হয়, কারন প্রতি মাসের ১০ -১৫ হাজার টাকার হিসাব মনে নাও থাকতে পারে) কৃতজ্ঞ থাকবো।

উত্তরঃ- অন্যের গচ্ছিত আমানত বা বন্ধকী মাল আপনার হেফাজতে থাকলে, বা আপনার কাছে কারো পাওনা অর্থ/সম্পদ (তা ঋণ, বাসাভাড়া, বিদ্যুতবিল, গ্যাসবিল, দোকানবাকী ইত্যাদি যে প্রকারেরই হোক না কেন) থাকলে, বা আপনার প্রদেয় নযর-মানত, কাফফারা, অনাদায়ী যাকাত/ফিতরা, ফিদিয়া ইত্যাদি থেকে থাকলে, সেইসকল অর্থ / সম্পদ আপনার অধিকারে থাকলেও আসলে তা ‘অন্যের সম্পদ’। আপনার বা আপনার পরিবারের […]

প্রশ্ন 0২: আমরা চার ভাই মাবাবার সাথে যৌথ ফ্যামিলিতে। বাবার ২০লাখ টাকা ঋণ আছে। ঐ ঋণ দাতা আমরা চার ভাই। ভাইদের মধ্যে আমার ব্যক্তিগত বিশ লাখ টাকা আছে। এই বিশ লাখ টাকা ঘর করার জন্য ব্যাংকে রেখেছি। ভাইদের প্রত্যেকের কাছে ব্যক্তিগত কমবেশ কিছু থাকতে পারে, সেটা কেউ কারোটা জানা নাই। আমি কিভাবে যাকাত হিসাব করব?

উত্তর: আপনার পিতা জীবিত থাকাবস্থায় তার ঋণের কারণে আপনার যাকাতের হিসাবে তারতম্য হবে না। তবে আপনার পিতার মৃত্যুর পরে নিম্নবর্ণিত তিনটি অবস্থার মধ্যে যে অবস্থাটি আপনার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য সেই অবস্থা বিবেচনায় নিয়ে আপনি যে বৎসরের যাকাতের হিসাব কষতে চান সেই বৎসরের মধ্যে আপনার সম্পদ থেকে যে পরিমাণ অর্থ / সম্পদ আপনার মৃত পিতার ঋণ পরিশোধে আপনি […]

প্রশ্ন ০১: উশর দেওয়ার পরও কি ঐ সম্পাদের আবার যাকাত দিতে হবে?

উত্তর: ফসলের উশর আদায়ের পরে অবশিষ্ট ফসলের যাকাত দিতে হয়না। তবে অবশিষ্ট ফসল বিক্রি করলে বিক্রয়লব্ধ অর্থ মূলধনে যুক্ত হবে এবং তাদ্বারা নেসাব পূর্ণ হলে যাকাত দিতে হয়। তথ্যসূত্র: মুফতি মুহাম্মদ ত্বকী  উসমানী প্রণীত ফাতাওয়া উসমানী, ২য় খণ্ড, উশর ও খারাজ অনুচ্ছেদ, পৃষ্ঠা নং ১২৭।