যাকাত সম্প্রসারণ কার্যক্রম

৬নং প্রশ্নঃ- সর্বনিম্ন কত টাকার উপর যাকাত দিতে হবে না? এম. এইচ. মনির-ফেইসবুক পেইজ।

উত্তরঃ- স্বর্ণের ক্ষেত্রে যাকাতের নিসাব বিশ মিসক্বাল আর রৌপ্যের ক্ষেত্রে যাকাতের নিসাব দুইশত দিরহাম। সেই হিসাবে সোনার যাকাতের নিসাব ৭.৫ তোলার সমপরিমাণ ৮৭.৪৮ গ্রাম সোনা এবং রূপার যাকাতের নিসাব ৫২.৫ তোলার সমপরিমাণ ৬১২.৩৪ গ্রাম রূপা এবং নগদ অর্থ বা মূদ্রা (টাকা, ডলার, পাউন্ড ইত্যাদি) ও ব্যবসাপণ্যের যাকাতের নিসাব ৬১২.৩৪ গ্রাম রূপার সমমূল্যের মূদ্রা বা ব্যবসাপণ্য। যদি সোনা-রূপা, মূদ্রা কিংবা ব্যবসাপণ্য – এগুলোর কোন একটি পৃথকভাবে নিসাব পরিমাণ না থাকে, কিন্তু এসবের মধ্যে একাধিক সামগ্রী একত্রিত করলে সাড়ে বায়ান্ন তোলা রূপার সমমূল্য বা তার চেয়ে অধিক হয়, তাহলে এরূপ ক্ষেত্রে সকল প্রকার সম্পদের মূল্যকে একত্রিত করে মোট মূল্যের উপর শতকরা আড়াই ভাগ হারে যাকাত আদায় করতে হয়।
বাংলাদেশ জুয়েলার্স এসোসিয়েশনের সাম্প্রতিক বিজ্ঞপ্তি অনুসারে সনাতন পদ্ধতির প্রতি গ্রাম রূপার মূল্য আশি টাকা হওয়ায় ৬১২.৩৪ গ্রাম রূপার মোট মূল্য ৪৮,৯৮৭.২০ (আটচল্লিশ হাজার নয়শত সাতাশি টাকা বিশ পয়সা) টাকা বা তার সমমূল্যের সোনা-রূপা-ব্যবসাপণ্য পূর্ণ এক চান্দ্র বৎসর সংগ্রহে থাকলে যাকাত দেওয়া লাগবে। অর্থাৎ, ৪৮,৯৮৭.২০ (আটচল্লিশ হাজার নয়শত সাতাশি টাকা বিশ পয়সা) টাকার চেয়ে কম টাকা বা কমমূল্যের সোনা-রূপা-ব্যবসাপণ্য পূর্ণ এক চান্দ্র বৎসর সংগ্রহে থাকলেও যাকাত ফরয় হয় না। উল্লেখ্য, হাতে থাকা সোনা-রূপা-ব্যবসাপণ্য স্থানীয় বাজারে বিক্রয় করলে যে পরিমাণ টাকা পাওয়া যাবে সেই পরিমাণ টাকাই হলো ঐ সোনা-রূপা ও ব্যবসাপণ্যের মূল্য।

১) ফাতাওয়ায়ে দারুল উলূম দেওবন্দ ৬ষ্ঠ খন্ড, পৃষ্ঠা-৬৮-৭০।
(২) ফাতাওয়ায়ে উসমানী, ২য় খন্ড, পৃষ্ঠা-৭১।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করতে নিচের বাটনগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

Share on facebook
ফেইসবুক
Share on twitter
টুইটার
Share on email
ইমেইল

স্বর্ণ এবং রৌপ্যের
বর্তমান বাজার মূল্য

আইটেমের নাম টাকা/ভরি টাকা/গ্রাম
স্বর্ণ ২২ ক্যারেট ৭৬,৫১৬ ৬৫৬০
স্বর্ণ ২১ ক্যারেট ৭৩,০১৭ ৬২৬০
স্বর্ণ ১৮ ক্যারেট ৬২,৬৩৬ ৫৩৭০
রৌপ্য ২১ ক্যারেট ১,৪৩৫ ১২৩
উৎস / সূত্র: বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি

অনুসন্ধান