যাকাত তহবিলের অর্থ আত্মসাৎ পরিচালক লুৎফুল হকের বিরুদ্ধে মামলা চলবে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের (ইফা) পরিচালক মো. লুৎফুল হকের বিরুদ্ধে যাকাত তহবিলের অর্থ আত্মসাৎ মামলা চলবে। গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার এবং বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীমের ভার্চুয়াল ডিভিশন বেঞ্চ এই আদেশ দেন। এর আগে লুৎফুল হক মামলা বাতিলের আবেদন করেন। আদালত তার আবেদনটি সরাসরি খারিজ করে দেন। লুৎফুল হকের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট পারভেজ হোসেন। সরকারপক্ষে শুনানিতে অংশ নেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মাহজাবিন রাব্বানী দীপা। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তদন্তকৃত মামলাটি এখন ঢাকার বিশেষ জজ ১ নম্বর আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।
মামলার নথি থেকে জানা যায়, ইফার যাকাত তহবিলের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের তৎকালিন পরিচালক (অর্থ ও হিসাব) আইয়ুব আলী চৌধুরী ২০১০ সালের ২৪ মে শেরেবাংলা নগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। সরকারি কর্মকর্তা মামলার আসামি হওয়ায় তদন্ত করে দুদক। সংস্থার সহকারী পরিচালক ওয়াজেদ আলী গাজী ২০১২ সালের ৩০ এপ্রিল তদন্ত শেষে আদালতে মামলাটির চার্জশিট দাখিল করেন।
চার্জশিটে লুৎফুল হকসহ ৬ জনকে আসামি করা হয়। অন্য আসামিরা হলেন, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী, মসজিদ কাউন্সিল ফর কমিউনিটি অ্যাডভান্সমেন্টের সাবেক চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, বন্ধুজন পরিষদের প্রধান সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ ইউনুস, ইসলামী সমাজ কল্যাণ কেন্দ্র’র সাবেক সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মসজিদ কাউন্সিলের সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল হক।
তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, যাকাতের ১ কোটি ২৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে সাঈদীসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অর্থ ও হিসাব বিভাগের তৎকালীন পরিচালক আইয়ুব আলী চৌধুরী। মামলাটি তদন্ত শেষে সাঈদীসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ২০১২ সালের ৩০ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন দুদকের সহকারী পরিচালক ওয়াজেদ আলী গাজী।

উৎস: দৈনিক ইনকিলাব
স্টাফ রিপোর্টার |
প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১,